আজ রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ইং

ফেঞ্চুগঞ্জে ছিনতাইয়ের নাটক সাজিয়ে ফেঁসে গেলেন পোস্ট মাস্টার আমজাদ!

 

ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিনিধি:: সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার যুধিষ্ঠিপুর ডাকঘরের পিয়ন মুমিন হোসেন। গত ৮ই সেপ্টেম্বর তিনি নিজ এলাকায় ছিনতাইয়ের শিকার হোন।

ছিনতাইকারীরা ছুরি ধরে তার নগদ ১লক্ষ ২০হাজার টাকা, ৩০টি রেজিস্ট্রারি চিঠি,কম্পিউটারের হার্ডডিস্ক ও মুমিনের অর্ধলক্ষাধিক টাকা দামের মোবাইল ছিনিয়ে নেয়।

এসব উল্লেখ করে ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মুমিনের পিতা একই পোস্ট অফিসের মাস্টার আমজাদ হোসেন। অভিযোগ পেয়ে মালামাল উদ্ধারের বড় একটি পুলিশ টিম নিয়ে ব্যাপক অভিযানে নামেন ফেঞ্চুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল বাসার মোহাম্মদ বদরুজ্জামান।

রাতে মুমিন নিজেই পুলিশ টিম নিয়ে তার এলাকা যুধিষ্ঠিপুরের বিভিন্ন সন্দেহজনক বাড়িতে যায়। এসব করতে করতে ওসির সন্দেহেই পড়ে যায় পিয়ন মুমিন হোসেন।পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসে আসল ঘটনা।

মুমিন হোসেন স্বীকার করে প্রতিবেশী শিশুর সাথে তার কথা-কাটাকাটি হয়,সে ঐ শিশুকে চড়থাপ্পড় মারে। এ নিয়ে শিশুর অবিভাবকদের সাথে আমজাদ হোসেন ও মুমিনের বাকবিতন্ড হয়। এজন্য প্রতিবেশীদের শায়েস্তা করতেই তারা বাপ ছেলে এই ছিনতাইয়ের নাটক সাজিয়ে পুলিশ নেন!

ফেঞ্চুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল বাসার মোহাম্মদ বদরুজ্জামান জানান, পোস্ট মাস্টার আমজাদ হোসেন ও তার ছেলে পিয়ন মুমিন হোসেন মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে মানুষদের বিপদে ফেলতে চাইছিলো কিন্তু পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে পারেনি। মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে জনসাধারণ ও পুলিশকে হয়রানি করার দায়ে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।

আজকের সংবাদ