আজ বুধবার, আগস্ট ১২, ২০২০ইং

আজমিরীগঞ্জে পূর্ব বিরোধের জেরে শিশু নির্যাতনের নাটক

এনামুল হক মিলাদ, আজমিরীগঞ্জ প্রতিনিধি:

হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে পূর্ব বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে শিশু নির্যাতনের নাটক সাজিয়েছে একজন ৷ আপন বড় ভাইয়ের ১২ বছর বয়সী মেয়েকে দিয়ে এই নাটক সাজায় ঐ ব্যক্তি ৷ পরে থানায় স্থানীয় মুরব্বীদের নিয়ে সালিশের মাধ্যমে এই নাটকের সমাপ্তি ঘটে ৷

জানা যায়, আজমিরীগঞ্জ উপজেলার ২নং বদলপুর ইউনিয়নের পিটুয়ারকান্দি গ্রামের কাজল মিয়া বাড়ির সামনে একটি ছোট নিত্যপণ্যের দোকান চালায় ৷ কাজল মিয়াকে দোকানের কাজে সাহায্য করেন তার স্ত্রী ও ১২ বছরের মেয়ে ৷

গত ১০ জুলাই দোকানে কাজল মিয়ার মেয়ে বসা অবস্থায় একই গ্রামের কাশেম মিয়ার পুত্র কাওসার (২০) দোকানে সিগারেট নিতে আসে। তখন ঐ মেয়েটি সিগারেট আনতে বাড়ির ভিতরে গিয়ে খেলায় মত্ত হয়ে উঠে ৷ মিনিট দশেক অপেক্ষার পর ঐ মেয়েটি দোকান বন্ধ করতে দোকানে আসে, তখন কাওসার সিগারেট দিতে বললে। মেয়েটি সিগারেট নেই বললে, রাগে কাওসার মিয়া মেয়েটিকে এই বলে ধমক দেয় যে তাহলে আমাকে এতক্ষণ দাঁড় করিয়ে রাখলা কেনো? এই কথা বলে কাওসার চলে যায় ৷ ছোট মেয়ে এই ধমক খেয়ে কেঁদে তার চাচা কামালকে জানায় ৷

তখন কাজল মিয়ার ভাই কামাল মিয়া পূর্ব বিরোধ মেটাতে থানায় এসে মেয়েটিকে নির্যাতন করা হয়েছে বলে মৌখিক একটি অভিযোগ করেন ৷ এর প্রেক্ষিতে গত ১০ জুলাই রাতে আজমিরীগঞ্জ থানার এসআই বিদ্যুৎ সহ একটি টিম পিটুয়ারকান্দি গ্রামে গিয়ে কাওসারের পিতা কাসেম মিয়াকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে ৷ পরে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বেড়িয়ে আসে সাজানো নাটক ৷

১১ জুলাই শনিবার বিকালে গ্রামের মুরব্বীদের নিয়ে সালিশে ঐ নাটকের নিস্পত্তি হয় ৷

এ বিষয়ে আজমিরীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকরতা ওসি (তদন্ত) আবু হানিফ বলেন, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে এই জঘন্য নাটক সাজানো হয় ৷ ভবিষ্যতে এ ধরনের কিছু যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে এ জন্য এদের কে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে ৷