আজ মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৬, ২০২১ইং

গোলাপগঞ্জে আশ্রয়ণ প্রকল্পের কাজ পরিদর্শন

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি: সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার ভাদেশ্বরে মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য ৬০টি ঘর নির্মিত হচ্ছে।

নির্মাণ কাজের অগ্রগতি দেখতে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় ভাদেশ্বর ইউনিয়নের ফতেহপুরের ইলামে নির্মাণাধীন প্রকল্পস্থান পরিদর্শনে যান গোলাপগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট ইকবাল আহমদ চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. গোলাম কবির, গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমদ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মনসুর আহমদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজিরা বেগম শীলা, সহকারী অফিসার (ভ‚মি) অনুপমা দাস, গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হারুনুর রশীদ চৌধুরী, ৮নং ভাদেশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান মো.আলাউদ্দিন, গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও গোলাপগঞ্জ সাংবাদিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি অজামিল চন্দ্র নাথ, সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি -১ সভাপতি ও সাংবাদিক আব্দুল আহাদ, গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি রতন মনী চন্দ, কার্যনির্বাহী সদস্য দীনেশ দেবনাথ, ব্রাজিল যুবলীগের আহবায়ক আবু সুফিয়ান উজ্জল, গোলাপগঞ্জ সাংবাদিক কল্যাণ সমিতির সাবেক সভাপতি ও কার্য নির্বাহী সদস্য শাহিন আলম সাহেদ, সহ-সভাপতি ইমরান আহমদ, সাধারণ সম্পাদক সাকিব আল মামুন, যুগ্ম সম্পাদক জয় রায় হিমেল, কোষাধ্যক্ষ সুলতান আবু নাসের, দপ্তর সম্পাদক খালেদ হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাহমুদুল হাসান বাচ্চু, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. জাকারিয়া আবুল, কার্য নির্বাহী সদস্য আনোয়ার হুমায়ুন, এম এ রাজ্জাক প্রমুখ। এসময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাড. ইকবাল আহমদ চৌধুরী বলেন, দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের দেশে এরকম গৃহহীনদের জন্য আশ্রয়ণ প্রকল্প হবে এক সময় চিন্তা করতে পারি নাই। এটা একমাত্র সম্ভব হয়েছে জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.গোলাম কবির বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণের লক্ষ্যে সরকারের সহযোগী হিসেবে উপজেলা প্রশাসন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। উপজেলার ইলাম, বাঘা, সদর ও চৌঘরীতে আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ২০০টি ঘর মার্চ মাসের মধ্যে সম্পন্ন হবে। যাদের ঘর নেই, বাস্তুহারা তারাই শুধু এ প্রকল্পের আওতায় আসতে পারবেন। প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ১লক্ষ ৭১হাজার টাকা।

ভোরেরসিলেট/এমএআর/বিএ