আজ রবিবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২০ইং

আইপিএল ট্রফি : মুম্বাইয়ের পঞ্চম, নাকি দিল্লির প্রথম?

স্পোর্টস ডেস্ক: আইপিএলের ফাইনালে আজ মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) মাঠে নামছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও দিল্লি ক্যাপিটালস। টুর্নামেন্টের সবচেয়ে সফল দল মুম্বাইয়ের ৫ম শিরোপা জয়ের লক্ষ্য। অন্যদিকে প্রথমবারের মতো ফাইনালে ওঠা দিল্লির সামনে সুযোগ, ট্রফিটা ছুঁয়ে দেখার। দুবাইয়ে ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ সময় রাত আটটায়।

‘ফুটবল খুব সহজ খেলা। ২২ জন ৯০ মিনিট একটা বলের পেছনে দৌড়াবে এবং শেষমেশ জিতবে জার্মানরা’! ফুটবল কিংবদন্তি গ্যারি লিনেকারের বিখ্যাত এই উক্তিটাকে আইপিএলেও ব্যবহার করতে পারেন চাইলে। ‘৮টা দল ৪০ ওভারের ৬০টা ম্যাচ খেলবে এবং চ্যাম্পিয়ন হবে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স’।

একেবারে খারাপ শোনাচ্ছে না নিশ্চয়ই! ৪ বারের চ্যাম্পিয়নদের প্রসঙ্গে এমন কথা মানিয়ে যায়। ২০১৩ সালের পর থেকে প্রতিটি বেজোড় বছরে ট্রফি জিতেছে রোহিত শর্মার দল। মাঝে জোড় বছরগুলোতে আবার ফাইনালেও পৌঁছুতে পারেনি তারা। সেই জেদ থেকেই কিনা, ২০২০ সালের ট্রফিটার দিকে তীক্ষ্ণ নজর ইন্ডিয়ান্সের।

আইপিএলে ব্যাক টু ব্যাক চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কীর্তি এক দলেরই। সেটি মাহেন্দ্র সিং ধোনির অধীন চেন্নাই সুপার কিংস। আইপিএলের সেরা অধিনায়ক রোহিত শর্মা নিশ্চয়ই ধোনির এই কীর্তিটাকেও ছাড়িয়ে যাওয়ার ছক কষছেন!

ঘরবন্দী কিংবা বদ্ধ গ্যালারির বছরটায় নিজেদের ভাগ্য বদলানোর সুযোগ পেল দিল্লি ক্যাপিটালস। প্রথমবারের মতো ফাইনালে পৌঁছুলো তারা। প্রথমবার ট্রফি ছোঁয়ার আনন্দ থেকে বঞ্চিত হতে চাইবে কি তারাও?

পুরো আসরের মনোযোগী দর্শকরা দুই দলের পার্থক্যটা স্পষ্টতই টের পাবেন। অভিজ্ঞ বনাম তারুণ্যের লড়াইও বলতে পারেন। অধিনায়ক রোহিত শর্মার ৫টি, পোলার্ডের ৪টি, হার্দিক পান্ডিয়ার ৩টি ও ক্রুনাল এবং সুর্যকুমার যাদব এবং জাসপ্রিত বুমরাহ, সবার আছে দু’টো করে আইপিএল ট্রফি জয়ের স্মৃতি। দিল্লির তো এখনও ফাইনাল খেলার সুযোগই মেলেনি!

তবে দলটিতে ম্যাচ উইনারের অভাব নেই। রিশাভ পন্ত কিংবা শ্রেয়াস আইয়ার পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে ধারাবাহিকতার উৎকৃষ্ট উদাহরণ।

চলতি আসরের ৩টি তো বটেই, সবশেষ ৭ ম্যাচের ৫টিতেই মুম্বাইয়ের কাছে হেরেছে দিল্লি ক্যাপিটালস।

তবে সবকিছুই এখন অতীত। নতুন দিনে নতুন ম্যাচে নামার আগে দুই দলই জানে, ট্রফিটা কেবল ৪০টা ওভার দূরেই আছে!

ভোরেরসিলেট/ডেস্ক/বিএ